//
you're reading...
Uncategorized

মুসলমানদ…

মুসলমানদের জন্য পহেলা এপ্রিল বা এপ্রিল ফুল পালন করা হারাম ও কুফরী
যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, যামানার মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী তিনি বলেন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ করেন, যে ব্যক্তি যে সম্প্রদায়ের সাথে মিল রাখবে তার হাশর-নশর তাদের সাথে হবে।
মুসলমানদের জন্য পহেলা এপ্রিল বা এপ্রিল ফুল পালন করা হারাম ও কুফরী। কারণ এদিনের ইতিহাস মুসলমানদের সাথে চরম প্রতারণা ও তাদেরকে নির্মমভাবে শহীদ করার ইতিহাস। মুসলমান নিজেদের ইতিহাস ও ঐতিহ্য সম্পর্কে গাফিল থাকার কারণেই আজকে আত্মহারা, বল্গাহারা হয়ে চরমভাবে নির্যাতিত হচ্ছে। তাই প্রত্যেক মুসলমান নর-নারীর জন্যই ফরয-ওয়াজিব হচ্ছে, পহেলা এপ্রিল বা এপ্রিল ফুল পালন করা থেকে বিরত থাকা।

মুজাদ্দিদে আ’যম, ইমাম রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী তিনি বলেন, প্রতি বৎসর ১লা এপ্রিলের নামে বাড়িতে-বাড়িতে, পাড়া-মহল্লায়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে, অফিস-আদালতে একে অপরকে ধোঁকা দিয়ে ঠকিয়ে প্রতারণা করে পহেলা এপ্রিল পালন করে থাকে। এ প্রতারণার আনন্দকে তারা পহেলা এপ্রিলের আনন্দ মনে করে থাকে এবং মুখেও তা উচ্চারণ করে থাকে। নাঊযুবিল্লাহ!

মুজাদ্দিদে আ’যম, ইমাম রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী তিনি বলেন, এমনিতে কুরআন শরীফ ও হাদীছ শরীফ-এ কম হাসার কথা বলা হয়েছে। উচ্চস্বরে হাসলে দিল মুর্দা হয়ে যাবার কথা বলা

Advertisements

About Md. Jahidul Islam (Barguna)

I am a student

Discussion

No comments yet.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

Follow "Barguna" on WordPress.com
%d bloggers like this: