//
you're reading...
www.facebook.com

“শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার ডাকরাপাড়া গ্রামে গণধর্ষণ”

শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার ডাকরাপাড়া গ্রামে গণধর্ষণের ঘটনায় আটক মঞ্জু মিয়াকে (২৩) পাঁচ দিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। শুক্রবার রিমান্ডের প্রথম দিনে সে পুলিশকে বেশ কিছু তথ্য দিয়েছে।

এদিকে গতকাল শেরপুর জেলা হাসপাতালে নির্যাতিতার (২৭) ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। পুলিশ ঘটনার হোতা সুমন মিয়াসহ তার অন্য সহযোগীদের আটকের চেষ্টা করছে।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শ্রীবরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আলী শেখ জানান, ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার মেয়েটির সঙ্গে মোবাইল ফোনে পরিচয় হয় শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার ডাকরাপাড়া গ্রামের আবেল মিয়ার ছেলে সুমনের (২৮)। কথোপকথনের একপর্যায়ে তাদের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সুমনের কথা অনুযায়ী মেয়েটি গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ফুলপুর থেকে শেরপুর শহরের নবীনগর বাসস্ট্যান্ডে চলে আসেন। সুমন রাত ৮টায় সিএনজিচালিত অটোরিকশাযোগে তাঁকে নিয়ে যায় শ্রীবরদীর ঝগড়ারচর বাজারে। সেখানে প্রায় এক ঘণ্টা অবস্থানের পর বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে গ্রামের সরুপথে হাঁটতে থাকে।
একপর্যায়ে গ্রামের ধানক্ষেতে নিয়ে একই এলাকার আব্দুল আজিজের ছেলে শামীম (২০), মজিবরের ছেলে মঞ্জু মিয়া (২৩), মণ্ডলের ছেলে আকতারসহ (২০) অজ্ঞাতপরিচয় সাত-আটজন মিলে মেয়েটির ওপর নির্যাতন চালায়। জ্ঞান হারালে মেয়েটিকে মৃত ভেবে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা।
পরে গ্রামের লোকজন মেয়েটিকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে জেলা হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় মেয়েটি বাদী হয়ে মামলা করেছেন।
Advertisements

About Md. Jahidul Islam (Barguna)

I am a student

Discussion

No comments yet.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

Follow "Barguna" on WordPress.com
%d bloggers like this: